কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন – সম্পূর্ণ গাইডলাইন

বর্তমান এআই এর যুগে এসে ব্লগিং শুরু করা ঠিক হবে কিনা বা ব্লগিং করে কি টাকা ইনকাম করা যাবে কিনা বর্তমান সময়ে এমন অনেক প্রশ্ন আসতে পারে একজন নতুন ব্লগার এর মনে।

আমি নিজে যখন ব্লগিং শুরু করি তখন আমার মনেও এমন অনেক প্রশ্নের উথান হয়েছিলো। যেমন ধরেন, আমি কি ব্লগিং করে ইনকাম করতে পারবো? বা আমি তো তেমন কিছুই জানি না তাহলে কি আমার এই সেক্টর বেছে নেওয়া ঠিক হবে কিনা এমন অনেক প্রশ্ন।

আজকে আমি আপনাদের ব্লগিং সম্পর্কিত সকল প্রশ্নের উত্তর দিবো এই পোস্ট এর মধ্যে। আশা করি আমার লেখা আপনার ভালো লাগবে। তো চলুন শুরু করি ব্লগিং কত টা স্ট্যাবল ব্যাবসা বা প্যাসিভ ইনকাম সোর্স এই সম্পর্কিত আলোচনা দিয়ে।

ব্লগিং কি?

ব্লগিং হলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে জার্নাল বা পত্রিকা তৈরি ও পরিচালনা করার প্রক্রিয়া। ব্লগে বিভিন্ন বিষয়ের উপর লিখিত কনটেন্ট, ছবি বা ভিডিও ইত্যাদি প্রকাশ করা হয় যা একজন ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে দেখতে এবং পড়তে পারবে।

ব্লগিং এর প্রকারভেদ

ব্লগ বিভিন্ন ধরণের হতে পারে। অনেকে নিজের জীবনী লিখে রাখার জন্য ব্লগ তৈরী করতে পারে আবার জ্ঞান বিতরণ এবং নিজেদের মার্কেটিং করার জন্য ব্লগ ওয়েবসাইট বানাতে পারে। নিচে ব্লগ এর ৩ টি ধরণ নিয়ে লিখা হলোঃ

ব্যক্তিগত ব্লগ: অনেকেই আছেন নিজের ক্রিয়েটিভিটি বা জ্ঞান শেয়ার করার জন্য ব্যক্তিগত ব্লগ শুরু করে থাকেন।

নিস ব্লগ: নিস ব্লগ হলো নির্দিষ্ট কোনো বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে সেই বিষয় সম্পর্কিত সকল তথ্য ওয়েবসাইটে পাবলিশ করা।

প্রাতিষ্ঠানিক ব্লগ: প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কার্যক্রম বা সার্ভিস সম্পর্কিত তথ্যাদি পাঠকের সাথে ভাগ করা এবং প্রতিষ্ঠানের প্রচার করা।

কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন

আমরা উপরে জানলাম যে ব্লগিং করতে ইন্টারনেটে আমাদের একটি ওয়েবসাইট থাকা লাগবে। যেই ওয়েবসাইটে আমাদের লেখা কনটেন্ট থাকবে। ব্লগিং এর প্রথম ধাপ আপনার একটি ওয়েবসাইট বানানো।

ব্লগ ওয়েবসাইট বানানোর দুটি জনপ্রিয় উপায় হলো গুগল এর সার্ভিস ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট তৈরি করা। একজন নতুন ব্লগার হিসেবে কখনোই আমি আপনাকে পরামর্শ দিবো না অনেক টাকা খরচ করে হোস্টিং কিনে ওয়ার্ডপ্রেসে আপনার ওয়েবসাইট বানান।

আপনি চাইলে ফ্রি তে গুগলের ব্লগার ব্যবহার করে নিজের ওয়েবসাইট বানিয়ে লেখালেখি শুরু করতে পারবেন। আপনি চাইলে আমাদের ফ্রি ব্লগিং উইথ বাইট বাংলাদেশ ভিডিও কনটেন্ট দেখে শুরু করতে পারেন আপনার ব্লগিং জার্নি।

ব্লগিং থেকে কি ইনকাম করা সম্ভব?

আপনি যেহেতু উপরের বিষয় স্ক্রল করে এই পর্যন্ত এসেছেন তার মানে আপনি ব্লগিং সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান আহরণ করেছেন এবং জানেন ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করা যায়। আসলেই ব্লগিং থেকে ভালো পরিমান অর্থ উপার্জন করা যায় তবে ব্লগিং এ পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে।

অনেকেই আছেন কিছুদিন চেষ্টা করার পর হাল ছেড়ে দেন। ব্লগিংয়ে এই কাজ করলে আপনি ইনকাম করতে পারবেন না বরং আপনার অনেক টাকা এবং সময় এর অপচয় হবে।

আশা করি আপনি একজন ডেডিকেটেড পারসন যে কিনা ব্লগিং মন থেকে করতে চান এবং নিজের একটা পরিচিতি তৈরি করতে চান। আপনার ডেডিকেশন যদি দিতে পারেন আমি মনে করি অতি দ্রুত সময়ে ব্লগিং থেকে ইনকাম শুরু করতে পারবেন।

ব্লগিং থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়

ব্লগিং থেকে টাকা ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হচ্ছে এডসেন্স। এডসেন্স হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় টেক জায়ান্ট গুগল এর একটি প্রডাক্ট। আপনি আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট গুগল এডসেন্স দ্বারা মনেটাইজ করার মাধ্যমে উপার্জন করতে পারবেন। এছাড়াও এফিলিয়েট মার্কেটিং ও অন্নান্য এড কোম্পানির এড সাইটে বসিয়ে উপার্জন করতে পারবেন।

আশা করি ধারণা পেয়েছেন কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন। ব্লগিং করে আপনি খুব সহজেই উপার্জন শুরু করতে পারেন অল্প সময়ের মধ্যেই। আমাদের ব্লগিং সার্ভিসগুলো নিতে যোগাযোগ করতে পারেন।

আপনার মতামত জানান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *